নবম শ্রেণী ইতিহাস তৃতীয় অধ্যায় প্রশ্ন উত্তর | West Bengal Class 9 History Suggestion






West Bengal Class 9 History Long Question Answer | Class 9 History Suggestion | নবম শ্রেণী ইতিহাস বড় প্রশ্ন উত্তর | নবম শ্রেণী ইতিহাস সাজেশন | নবম শ্রেণী ইতিহাস নোটস

WBBSE Class 9 History Suggestion: প্রিয় ছাত্র-ছাত্রীরা তোমরা যারা নবম শ্রেণীতে পাঠরত তাদের জন্য এই পোস্টটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তোমাদের ইতিহাসের প্রথম অধ্যায়ের যেসমস্ত প্রশ্ন তোমাদের পরীক্ষায় আসবে সেগুলো আলোচনা করা হয়েছে।


তৃতীয় অধ্যায়

ঊনবিংশ শতকের ইউরোপ: রাজতান্ত্রিক ও জাতীয়তাবাদী ভাবধারার সংঘাত



অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর 

প্রশ্নের মান- ০১


১.ভিয়েনা সম্মেলন কবে অনুষ্ঠিত হয়?

Ans. ১৮১৫ খ্রিস্টাব্দে।


২. প্রথম কোন দেশে জাতীয়তাবাদ সর্বাধিক তীব্র হয়?

Ans. ফ্রান্স।


৩. ভিয়েনা সম্মেলনের সভাপতি কে ছিলেন?

Ans. মেটারনিখ।


৪. কূটনীতির জাদুকর কাকে বলা হয়?

Ans. মেটারনিখকে।


৫. ভিয়েনা সম্মেলনে ফ্রান্সের প্রতিনিধি কে ছিলেন?

Ans. তালিরঁ।


৬. মেটারনিখ কে ছিলেন?

Ans. অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর বা প্রধানমন্ত্রী।


৭. কোন সময়কে মেটারনিখের যুগ বলা হয়?

Ans. ১৮১৫ - ১৮৪৮ খ্রিষ্টাব্দকে।


৮. কে ও কবে কার্লসবাড ডিক্রি জারি করেন?

Ans. মেটারনিখ, ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দে কার্লসবাড ডিক্রি জারি করেন।


৯. জুলাই বিপ্লবের সময় ফ্রান্সের রাজা কে ছিলেন?

Ans. দশম চার্লস।


১০. ফ্রান্সের সর্বশেষ বুরবোঁ রাজা কে ছিলেন?

Ans. অষ্টাদশ লুই।


১১. 'জার' কাদের বলা হত?

Ans. রাশিয়ার শাসকদের।


১২. 'মুক্তিদাতা জার' কাকে বলা হয়?

Ans. জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডারকে।


১৩. কোন দেশকে 'ইউরোপের রুগ্ন ব্যক্তি' বলা হত?

Ans. তুরস্ককে।


১৪. কে 'রক্ত ও লৌহ নীতি' গ্রহণ করেন?

Ans. বিসমার্ক।


১৫. বলকান অঞ্চলে কোন দেশ 'উষ্ণজল নীতি' গ্রহণ করেছিল?

Ans. রাশিয়া।


সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর

প্রশ্নের মান- ০২


১. জাতীয়তাবাদ বলতে কি বোঝ?

Ans. জাতীয়তাবাদ হল একটি ভাগগত ধারা। ভাষা, ধর্ম, সাহিত্য-সংস্কৃতি প্রভৃতি কোন একটি কারণে যখন একটি দেশের আপামর জনগণের মধ্যে গভীর একাত্মবোধ জন্মায় এবং এই জনগণের প্রতিটি অংশ যখন নিজেদের একে অপরের সুখ দুঃখের সঙ্গী বলে মনে করে, তখন এই গণ অনুভূতিকে জাতীয়তাবাদ বলা হয়।


২. ভিয়েনা সম্মেলনের গৃহীত নীতিগুলো কি কি?

Ans. নায্য অধিকার নীতি, ক্ষতিপূরণ নীতি এবং শক্তিসাম্য নীতি।


৩. ভিয়েনা সম্মেলনে 'চার প্রধান' বা Big Four নামে কারা পরিচিত ছিল?

Ans. অস্ট্রিয়া, রাশিয়া প্রাশিয়া ও ইংল্যান্ড - এই চারটি রাষ্ট্র ভিয়েনা সম্মেলনে 'চার প্রধান' বা Big Four নামে পরিচিত ছিল।


৪. ১৮৪৮ খ্রিষ্টাব্দকে 'বিপ্লবের বছর' বলা হয় কেন?

Ans. ১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লব ফ্রান্সের সীমানা ছাড়িয়ে ইউরোপের ১৫ টি দেশের জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের সৃষ্টি করেছিল। তাই সাধারণভাবে, ১৮৪৮ খ্রিষ্টাব্দকে 'বিপ্লবের বছর' বলা হয়।


৫. কে ও কোন ইয়ং ইতালি দল গঠন করেন?

Ans. জোসেফ মাৎসিনি, ১৮৩১ খ্রিস্টাব্দে ইয়ং ইতালি দল গঠন করেন।


৬. রিসর্জিমেন্টো কী?

Ans. রিসর্জিমেন্টো কথাটির বাংলা প্রতিশব্দ পুনর্জন্ম বা পুনর্জাগরণ। ঊনবিংশ শতাব্দীর প্রথমার্ধে ইতালিতে যে জাতীয় ঐক্য আন্দোলনের সূচনা হয় তাকে সার্বিকভাবে, রিসর্জিমেন্টো বলা হয়।


৭. জোলভেরাইন কী?

Ans. ১৮৩৪ খ্রিস্টাব্দে প্রাশিয়ার নেতৃত্বে জার্মানির রাজ্যগুলির মধ্যে যে আন্তরাষ্ট্রীয় শুল্ক সংস্থা গঠিত হয়, তার নাম জোলভেরাইন। জোলভেরাইন গঠিত হওয়ার ফলে জার্মান রাজ্যগুলির অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে একাত্মবোধ গড়ে ওঠে।


৮. রক্ত ও লৌহ নীতি কী?

Ans. জার্মানির জটিল রাজনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য বিসমার্ক গণতন্ত্র বা ভোট এবং বক্তৃতার ওপর আস্থাশীল ছিলেন না, বরং তিনি সামরিক শক্তির উপর গুরুত্ব দিয়েছিলেন। তার এই নীতি রক্ত ও লৌহ নীতি নামে পরিচিত।


৯. এমস টেলিগ্রাম কী?

Ans. ১৮৭০ খ্রিস্টাব্দের জুলাই মাসে এমস নামক স্থানে প্রাশিয়ার রাজা ফ্রেডরিক উইলিয়ামের সঙ্গে ফরাসি রাষ্ট্রদূত কাউন্ট বেনেদিতির মধ্যে স্পেনের সিংহাসনের উত্তরাধিকার সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়। এই আলোচনার বিষয়বস্তু প্রাশিয়ার রাজা বিসমার্ককে টেলিগ্রামের মাধ্যমে জানান। এটি এমস টেলিগ্রাম নামে পরিচিত। 


১০. উষ্ণজল নীতি কী?

Ans. রাশিয়া একদা বাল্টিক সাগরের পথ ধরে বহির্বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করত। কিন্তু সমস্যা ছিল যে, বাল্টিক সাগর সারা বছর বরফমুক্ত ছিল না। তাই রাশিয়া বরফমুক্ত কৃষ্ণসাগর, দার্দনেলস প্রণালী অতিক্রম করে ভূমধ্যসাগরে পৌঁছানোর উদ্যোগ নেয়। রাশিয়ার এই পরিকল্পনা ‘উয়জল নীতি’ বা ‘বরফমুক্ত সমুদ্র উপকূল পর্যন্ত বিস্তার নীতি’ নামে পরিচিত।


১১. হেটাইরিয়া ফিলীকে কী?

Ans. গ্রিসের একটি বৈপ্লবিক সংস্থার নাম ছিল হেটাইরিয়া ফিলিকে। ১৮১৪ খ্রিস্টাব্দে তুরস্কের আধিপত্য থেকে মুক্তি অর্জনের জন্য গ্রিসের বিপ্লবীরা ওডেসায় এই গুপ্ত সমিতি প্রতিষ্ঠা করেন।



বিশ্লেষনমূলক প্রশ্ন

প্রশ্নের মান- ০৪


১. ভিয়েনা সম্মেলনে গৃহীত তিনটি নীতি সম্পর্কে লেখো।


২. টীকা লেখো: মেটারনিখ ব্যবস্থা।


৩. জুলাই বিপ্লবের (১৮৩০) কারণগুলি আলোচনা করো।


৪. তুরস্ককে 'ইউরোপের রুগ্ন মানুষ' বলা হয় কেন?


৫. ফেব্রুয়ারি বিপ্লবের কারণ আলোচনা করো।


৬. টীকা লেখো: বিসমার্কের রক্ত ও লৌহ নীতি।



ব্যাখ্যামূলক প্রশ্ন:

প্রশ্নের মান- ০৮


১. ইতালির ঐক্য আন্দোলনের পরিচয় দাও।


২. বিসমার্ক কিভাবে জার্মানিকে ঐক্যবদ্ধ করেন?


৩. ক্রিমিয়ার যুদ্ধের কারণ ও ফলাফল আলোচনা করো।


তথ্য সূত্র:

১. প্রাক মাধ্যমিক ইতিহাস সহায়িকা (নবম শ্রেণী)।

সম্পাদনায়: শ্রীদেবাশীষ মৌলিক।

ড: প্রণবকুমার চট্টোপাধ্যায় ও চিন্ময় দে।


২. ছায়া ইতিহাস শিক্ষক (নবম শ্রেণী)।

জীবন মুখোপাধ্যায় | সুভাষ বিশ্বাস।


৩. ইতিহাস পরিচয় (নবম শ্রেণী)।

Santra ( দাসগুপ্ত | কর | পাহাড়ী )।

 


1 মন্তব্যসমূহ

নবীনতর পূর্বতন
close