মাধ্যমিক ইতিহাস সাজেশন 2023 | চতুর্থ অধ্যায় ( সংঘবদ্ধতার গোড়ার কথা ) | Madhyamik History Suggestion 2023


মাধ্যমিক ইতিহাস বড় প্রশ্ন চতুর্থ অধ্যায় | West Bengal Madhyamik History Long Question Suggestion 

Class 10 History Suggestion: এই ব্লগে আমরা চতুর্থ অধ্যায়ের সংঘবদ্ধতার গোড়ার কথা থেকে যে সমস্ত বড় প্রশ্ন ও ২ নম্বরের প্রশ্ন পরীক্ষায় আসতে পারে সেগুলি নীচে দেওয়া রইলো

প্রিয় ছাত্রছাত্রীরা তোমাদের এখন বিভিন্ন অধ্যায়ভিত্তিক সাজেশন দেওয়া হচ্ছে। এগুলি ভালো করে প্রাকটিস করবে। তোমাদের পরীক্ষার আগে ফাইনাল সাজেশনও আমাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা হবে।  


চতুর্থ অধ্যায়-

        ( সংঘবদ্ধতার গোড়ার কথা ) 


এই অধ্যায় থেকে যেসব 2 নম্বরের প্রশ্ন পরীক্ষায় আসতে পারে সেগুলি নীচে দেওয়া রইলো।

1. ঝাঁসির রানী বিখ্যাত কেন?

ঝাঁসি রাজ্যটি কোম্পানি স্বত্ববিলোপ নীতির দ্বারা দখল করে নিলে ঝাঁসির রানী লক্ষ্মীবাঈ এর প্রতিবাদে মহাবিদ্রোহে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তিনি অসীম সাহস ও বীরত্বের সঙ্গে ইংরেজদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন। শেষ পর্যন্ত যুদ্ধক্ষেত্রেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তাই তিনি ইতিহাসে স্মরণীয়।


2. সভা সমিতির যুগ কাকে বলে?

              অথবা

উনিশ শতককে সভা সমিতির যুগ বলা হয় কেন?

জাতীয় চেতনা উন্মেষের সঙ্গে সঙ্গে ভারতীয়দের মধ্যে দেশাত্মবোধের ধারণা জাগ্রত হয় এবং ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে জনমত গঠনের জন্য ভারতীয়রা সঙ্ঘবদ্ধ আন্দোলনের তাগিদ অনুভব করে। এই ধারণা থেকেই উনিশ শতকে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে বেশ কিছু রাজনৈতিক সভা সমিতি গড়ে উঠতে শুরু করে। যে কারণে অধ্যাপক অনিল শীল উনিশ শতককে সভা সমিতির যুগ বলে অভিহিত করেছেন।


3. তাঁতিয়া টোপি কে ছিলেন?

পেশোয়া দ্বিতীয় বাজিরাও এর দত্তক পুত্র নানা সাহেবের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ছিলেন তাঁতিয়া টোপি। তিনি মহাবিদ্রোহের সময় নানাসাহেব ও লক্ষীবাইকে বিভিন্নভাবে সাহায্য করেছিলেন।


4. মহারানীর ঘোষণাপত্র কী?

ভারতের শাসনভার আনুষ্ঠানিকভাবে নিজের হাতে নেওয়ার জন্য ১৮৫৮ খ্রিস্টাব্দের ১ নভেম্বর ইংল্যান্ডের মহারানী ভিক্টোরিয়া একটি ঘোষণা জারি করেছিলেন। এটি মহারানীর ঘোষণাপত্র নামে পরিচিত। এই ঘোষণায় ভারত শাসনের উদ্দেশ্যগুলি বলা হয়েছিল।


5. ভারত সভার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কী ছিল?

১৮৭৬ খ্রিস্টাব্দের ২৬ জুলাই কলকাতার অ্যালবার্ট হলে আয়োজিত এক সভায় ভারত সভা প্রতিষ্ঠিত হয়। এর মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ছিল-

a. দেশে এক শক্তিশালী জনমত গঠন করা।

b. ভারতের বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি গড়ে তোলা।

c. জনগণকে ব্রিটিশ বিরোধী গণ আন্দোলনে উদ্বুদ্ধ করা।


6. ইলবার্ট বিল কী?

১৮৭৩ খ্রিস্টাব্দের ফৌজদারি আইন অনুসারে কোন ভারতীয় বিচারক ইউরোপীয়দের বিচার করতে পারতেন না। এই ধরনের জাতিভেদ মূলক বৈষম্য দূর করার জন্য লর্ড রিপন তার আইন পরিষদের সদস্য ইলবার্টকে একটি বিল তৈরি করতে বলেন। এতে ভারতীয় বিচারকদের ইউরোপীয় বিচারকদের সমমর্যাদা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। এটি ইলবার্ট বিল নামে পরিচিত।


7. অস্ত্র আইন কী?

১৯৭৮ খ্রিস্টাব্দে লর্ড লিটন একটি আইন প্রবর্তন করেন যাতে বলা হয় আত্মরক্ষার জন্য ভারতের জনগন অস্ত্র রাখতে পারবেন না। এটি অস্ত্র আইন নামে পরিচিত।


8. নাট্যাভিনয় নিয়ন্ত্রণ আইন কী?

১৮৭৬ খ্রিষ্টাব্দে লর্ড নর্থব্রুক নাট্যাভিনয় নিয়ন্ত্রণ আইন প্রবর্তন করেন। এই আইন অনুযায়ী জাতীয়তাবাদ বিকাশে সহায়ক এমন কোনো নাটক মঞ্চস্থ করা যাবে না। কোনো নাটক তার অভিনয়ের আগে পান্ডুলিপি পুলিশের কাছে জমা দিয়ে নাটকটির অভিনয়ের অনুমতি নিতে হবে।


এই অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ন 4 নম্বরের প্রশ্ন 


1. মহাবিদ্রোহের সময় হিন্দু-মুসলিম ঐক্য সম্পর্কে আলোচনা করো।


2. ১৮৫৭ খ্রিস্টাব্দের বিদ্রোহকে কি সামন্ত শ্রেণীর বিদ্রোহ বলা যায়?


3. মহাবিদ্রোহের প্রতি শিক্ষিত বাঙালি সমাজের মনোভাব কেমন ছিল?


4. ভারতের জাতীয়তাবাদ বিকাশে বর্তমান ভারত গ্রন্থ/ আনন্দমঠ উপন্যাসের অবদান আলোচনা করো।


5. 'ভারতমাতা' চিত্রের ঐতিহাসিক তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো।


এই অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ন 8 নম্বরের প্রশ্ন 

1. ১৮৫৭ খ্রিস্টাব্দের মহাবিদ্রোহের চরিত্র ও প্রকৃতি আলোচনা করো। ( ৮)


2. লেখায় ও রেখায় ভারতে জাতীয়তাবাদের বিকাশ আলোচনা করো। (৮)

               অথবা

ভারতের জাতীয়তাবাদের বিকাশে সাহিত্য ও চিত্রকলার অবদান আলোচনা করো।


গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর নীচে



১. বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনে নারীদের ভূমিকা - CLICK HERE

২. প্রকৃতি মানুষ ও শিক্ষার সমন্বয়ে রবীন্দ্রনাথের চিন্তা-CLICK HERE

৩. রশিদ আলি দিবস কেন পালন করা হয়- CLICK HERE

৪. নারী ইতিহাস সম্পর্কে একটি টীকা- CLICK HERE


[ প্রশ্নের উত্তর সংক্রান্ত সাহায্যের জন্য 8016425058 এই নম্বরে হোয়াটসঅ্যাপ করুন ] 

 তৃতীয় অধ্যায়ের সাজেশন দেখে নিন- CLICK HERE

প্রিয় ছাত্র ছাত্রীরা তোমরা উপরের বড় প্রশ্নগুলো ভালোভাবে প্র্যাকটিস করো। তোমাদের মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে আমাদের ওয়েবসাইটে ফাইনাল সাজেশন (WB Madhyamik History Suggestion) দেওয়া হবে। তাই নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো রাখুন।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন
close